Categories
Uncategorized

ইংল্যান্ডকে মেইলে হুমকি, বাড়ানো হলো নিউজিল্যান্ডের মেয়েদের নিরাপত্তা

কী যে হচ্ছে বিশ্ব ক্রিকেটে! চার, ছক্কা, উইকেটের চেয়েও ইদানীং যেন নিরাপত্তা, শঙ্কা, হুমকি শব্দগুলোই বেশি আলোচিত হচ্ছে! কদিন আগে নিউজিল্যান্ড দল নিরাপত্তা হুমকি পাওয়ার দাবিতে পাকিস্তান সফর থেকে না খেলেই ফিরে গেল। এরপর ইংল্যান্ড দল গতকাল জানিয়ে দিল, তারাও পাকিস্তান যাবে না। এর মধ্যে আজ আবার খবরে নিরাপত্তাজনিত হুমকি। গতকাল নিউজিল্যান্ডের ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনকে নিরাপত্তা নিয়ে হুমকি জানিয়ে মেইল পাঠানো হয়েছে ইংল্যান্ডের ক্রিকেট বোর্ডের (ইসিবি) কাছে। এরপর এই মুহূর্তে ইংল্যান্ড সফরে থাকা নিউজিল্যান্ডের মেয়েদের দলের নিরাপত্তা আরও বাড়িয়ে দিয়েছে নিউজিল্যান্ডের ক্রিকেট বোর্ড (এনজেডসি)। বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন এনজেডসি অবশ্য জানিয়েছে, ইসিবির কর্মকর্তাদের কাছে পাঠানো ওই নিরাপত্তা হুমকি জানানো মেইল ‘গুরুতর’ নয়। তবু সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে ‘হোয়াইট ফার্নস’ নামে পরিচিত নিউজিল্যান্ডের মেয়েদের ক্রিকেট দলের নিরাপত্তা বাড়ানো। আজ মঙ্গলবার লেস্টারে ইংল্যান্ডের মেয়েদের বিপক্ষে মাঠে নামবে নিউজিল্যান্ডের মেয়েরা। আজ মঙ্গলবার লেস্টারে ইংল্যান্ডের মেয়েদের বিপক্ষে মাঠে নামবে নিউজিল্যান্ডের মেয়েরা আজ মঙ্গলবার লেস্টারে ইংল্যান্ডের মেয়েদের বিপক্ষে মাঠে নামবে নিউজিল্যান্ডের মেয়েরাছবি: রয়টার্স ‘এনজেডসিকে ঘিরে একটা হুমকি দেওয়া মেইল ইসিবি পেয়েছে।

যদিও এই মেইলে নির্দিষ্ট করে হোয়াইট ফার্নসের কথা বলা হয়নি, তবু মেইলটাকে গুরুত্বের সঙ্গে নেওয়া হয়েছে। এটা নিয়ে তদন্ত হয়েছে। তদন্তের পর এটিকে অত গুরুতর মনে হয়নি। হোয়াইট ফার্নস লেস্টারে পৌঁছেছে, এবং সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে তাদের ঘিরে নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে’—বিবৃতিতে লিখেছে এনজেডসি। বিজ্ঞাপন হুমকিটা এমন সময়ে এসেছে, যখন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নিরাপত্তা শঙ্কা আবারও গাঢ় হয়ে উঠছে। গতকালই ইংল্যান্ডের ক্রিকেট বোর্ড জানিয়ে দিয়েছে, আগামী মাসে ইংল্যান্ডের ছেলে ও মেয়েদের ক্রিকেট দল পাকিস্তানে যাওয়ার কথা থাকলেও সেটি বাতিল করা হচ্ছে। ‘ওই অঞ্চলে সফরের ক্ষেত্রে ক্রমবর্ধমান উদ্বেগ’কে কারণ হিসেবে দেখিয়েছে ইসিবি। এর আগে একই কারণ দেখিয়ে পাকিস্তান সফর থেকে চলে গেছে নিউজিল্যান্ড। ১৮ বছর পর পাকিস্তানে গেলেও গত শুক্রবার হঠাৎ নিরাপত্তা হুমকির কথা জানিয়ে কোনো ম্যাচ না খেলেই পাকিস্তান থেকে ফিরে যায় নিউজিল্যান্ড দল। শুক্রবারই রাওয়ালপিন্ডিতে প্রথম ওয়ানডে হওয়ার কথা ছিল, তার কয়েক ঘণ্টা আগে আসে নিউজিল্যান্ডের ফিরে যাওয়ার সিদ্ধান্তের খবর। তাদের কাছে ‘নির্দিষ্ট ও বিশ্বাসযোগ্য হুমকি’র তথ্য ছিল জানিয়ে সফর থেকে ফিরে যাচ্ছে বলে জানিয়েছে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট। কিন্তু হুমকিটা কী এবং কোন পর্যায়ের সেটি জানাতে চায়নি তারা। নিউজিল্যান্ড পাকিস্তান সফর বাতিল করেছে,

যাবে না ইংল্যান্ডও নিউজিল্যান্ড পাকিস্তান সফর বাতিল করেছে, যাবে না ইংল্যান্ডওছবি: এএফপি পাকিস্তানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ রাশিদ আহমাদ অবশ্য পরে বলেছেন, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ও পাকিস্তানের ক্রিকেটের কিংবদন্তি অধিনায়ক ইমরান খানের সঙ্গে ফোনালাপে নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আরডার্ন জানিয়েছেন যে স্টেডিয়ামের বাইরে নিউজিল্যান্ড দলের ওপর সন্ত্রাসী হামলা হবে—এমন সুনির্দিষ্ট তথ্য তাঁদের কাছে ছিল। নিউজিল্যান্ড ফিরে যাওয়ার পর এখন ইংল্যান্ডও পাকিস্তানে না যাওয়ার ঘোষণা পাকিস্তানের ক্রিকেটের জন্যই বড় একটা ধাক্কা। ২০০৯ সালে লাহোরে শ্রীলঙ্কা দলের বাসে সন্ত্রাসী হামলার পর পাকিস্তানে অনেক বছর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট আয়োজন সম্ভব হয়নি। এবার নিউজিল্যান্ড-ইংল্যান্ড ফিরে যাওয়ায় আবারও ধাক্কা খেতে যাচ্ছে কি না পাকিস্তান, এমন একটা আলোচনা উঠছে বটে! নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট দল গত শনিবার পাকিস্তান ছেড়ে দুবাই গেছে। এদের মধ্যে আগামী অক্টোবরে অনুষ্ঠেয় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে যাঁরা নিউজিল্যান্ড দলে আছেন, তাঁরা দুবাইয়ে থেকে যাবেন। অন্যরা ধরবেন নিউজিল্যান্ডের বিমান।

Categories
Uncategorized

পাকিস্তান সফর বাতিল করা ‘নেতিবাচক মানসিকতা’

নিউজিল্যান্ড সফর বাতিল করে চলে গেছে পাকিস্তান ছেড়ে। কারণ, সম্ভাব্য নিরাপত্তা–হুমকি। দেশের মাটিতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফেরানোর অভিযান যখন সাফল্যের মুখ দেখছে, তখন সিদ্ধান্তটা ধাক্কা হয়েই এসেছে পাকিস্তানের জন্য। সেই ধাক্কা বড় আঘাতে পরিণত হয়েছে ইংল্যান্ডের সিদ্ধান্তে। কোনো ধরনের নিরাপত্তা–হুমকি নয়, ‘উদ্বেগ বাড়ায়’ পাকিস্তান সফর একতরফাভাবে বাতিল করেছে ইংলিশ ও ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি)। কাল রাতে ইসিবির সিদ্ধান্ত হাহাকারের জন্ম দিয়েছে পাকিস্তান ক্রিকেটে। ২০০৯ সালে লাহোরে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দলের টিম বাসে সন্ত্রাসী হামলার পর থেকে দীর্ঘ অনেক বছর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটহীন দিন পার করেছে পাকিস্তান। ২০১৫ সাল পর্যন্ত কোনো আন্তর্জাতিক ক্রিকেট দল পাকিস্তান সফর করেনি। এরপর ধীরে ধীরে জিম্বাবুয়ে শ্রীলঙ্কা, বাংলাদেশ পাকিস্তান সফর করার পর আবারও আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফেরে পাকিস্তানে। নিউজিল্যান্ড সফর বাতিল করেছে, পাকিস্তান সফরে না যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে ইংল্যান্ডও নিউজিল্যান্ড সফর বাতিল করেছে, পাকিস্তান সফরে না যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে ইংল্যান্ডওছবি: এএফপি বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন কিছুদিন আগে দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট দলও পাকিস্তান সফর করেছে।

এবার দীর্ঘ ১৮ বছর পর নিউজিল্যান্ড এসেছিল পাকিস্তানে। কিন্তু এক ‘নিরাপত্তা–হুমকি’ সেটি পণ্ড করে দিয়েছে। ইংল্যান্ডও সফর বাতিল করায় পাকিস্তান এখন সেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটহীন দিনগুলো আবার দেখতে পাচ্ছে। ইংল্যান্ডের সফর বাতিল করাকে পশ্চিমা দেশগুলোর ‘নেতিবাচক মানসিকতা’ বলছেন সাবেক অধিনায়ক জাভেদ মিয়াঁদাদ। তিনি বলেছেন, ‘তারা প্রথমে জোর করে আমাদের নিরাপত্তাব্যবস্থা পরখ করে দেখল, এরপর কোনো সুনির্দিষ্ট কারণ ছাড়াই সফর বাতিল করে চলে গেল। এটা নেতিবাচক মানসিকতা ছাড়া আর কিছুই নয়।’ পাকিস্তানের ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি রমিজ রাজা নিউজিল্যান্ডের সফর বাতিলের বিষয়টি নিয়ে যেতে চান আইসিসির দরবারে পাকিস্তানের ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি রমিজ রাজা নিউজিল্যান্ডের সফর বাতিলের বিষয়টি নিয়ে যেতে চান আইসিসির দরবারেফাইল ছবি বিজ্ঞাপন ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজটি নিরপেক্ষ ভেন্যুতে আয়োজন করলে মিয়াঁদাদের কোনো আপত্তি নেই, ‘ইংল্যান্ডকে জিজ্ঞেস করতে হবে, তারা খেলতে চায় কি না, যদি বলে চাই, তাহলে নিরপক্ষে ভেন্যুতে হলেও সিরিজটি আয়োজন করা উচিত। কারণ, আমরা খেলতে চাই, সেটি যেখানেই হোক না কেন।’

পাকিস্তানি ব্যাটসম্যান শান মাসুদ ব্যাপারটিকে ইংল্যান্ডের অকৃতজ্ঞ আচরণ হিসেবেই দেখছেন, ‘ছয় বছর নির্বাসনে ছিল পাকিস্তান ক্রিকেট। কোনো আন্তর্জাতিক ম্যাচ আমরা আয়োজন করতে পারিনি। পাকিস্তান দেশ হিসেবে ক্রিকেটে অনেক ত্যাগ স্বীকার করেছে। আমরা কোভিডের বিপজ্জনক সময় ইংল্যান্ড সফর করেছি। এখন ইংল্যান্ডের উচিত ছিল আমাদের বিপদের সময় পাশে দাঁড়ানো।’ পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) সভাপতি রমিজ রাজা স্বাভাবিকভাবেই ক্ষুব্ধ ইংল্যান্ডের এ সিদ্ধান্তে, ‘ইংল্যান্ডের সিদ্ধান্তে আমি হতাশ। তারা প্রতিশ্রুতি রাখেনি। যখন বেশি তাদের দরকার, তখনই তারা সরে দাঁড়িয়েছে। কিন্তু আমরা ইনশা আল্লাহ টিকে থাকব।’ রমিজ মনে করেন প্রথমে নিউজিল্যান্ড ও পরে ইংল্যান্ডের সফর বাতিল করা একধরনের জেগে ওঠার বার্তা, ‘এটা অবশ্যই জেগে ওঠার বার্তা। আমাদের বিশ্বসেরা দল হয়ে উঠতে হবে, যেন বিশ্বের বাকি সব দেশ আমাদের সঙ্গে খেলার জন্য লাইন ধরে দাঁড়িয়ে থাকে।’

Categories
Uncategorized

‘অসংখ্য খেলোয়াড়ের গুরু ছিলেন আপনি, হয়েও থাকবেন’

তিনি ছিলেন ক্রিকেট কোচ, একজন ক্রিকেট লেখক। জালাল আহমেদ চৌধুরী যেমন ক্রিকেটারদের ‘গুরু’, তেমনি বহু ক্রিকেট লিখিয়েরও আদর্শ। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও ছিল তাঁর সরব উপস্থিতি। হয়তো ব্যক্তিগত সম্পর্ক নেই, তবে কোনো পোস্টের নিচে একটা মন্তব্য করেই তাঁকে কাছে টেনে নিয়েছেন। জালাল আহমেদ চৌধুরীর চলে যাওয়া তাই ছুঁয়ে গেছে সবাইকেই। বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন কয়েক দিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন জালাল আহমেদ। হাসপাতাল থেকে একবার ছাড়া পেলেও আবার ভর্তি হতে হয় তাঁকে। ফুসফুসের সংক্রমণে তাঁকে নিতে হয় নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ)। সেখান থেকেই তিনি চলে গেলেন না ফেরার দেশে। অসংখ্য ক্রিকেটারের গুরু জালাল আহমেদ চৌধুরী অসংখ্য ক্রিকেটারের গুরু জালাল আহমেদ চৌধুরীফাইল

ছবি: প্রথম আলো জালাল আহমেদ চৌধুরীকে স্মরণ করে বাংলাদেশের ইতিহাসের সফলতম অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা লিখেছেন, ‘যাঁদের হাত ধরে ক্রিকেটজীবন শুরু করা, তাঁদের বিদায়গুলো এভাবে দেখা খুবই কঠিন। স্যার, আপনার অধীনে খেলা, আপনার আদেশ, ড্রেসিংরুমে আপনার স্থির থাকা, আপনার লেখা—সবকিছুই এখন স্মৃতি হয়ে গেল। বাংলাদেশ ক্রিকেটে আপনার অবদান যাঁরা দেখেছেন, তাঁরা আজীবন মনে রাখবেন। অসংখ্য খেলোয়াড়ের গুরু ছিলেন আপনি, আর হয়েও থাকবেন। ওপারে ভালো থাকবেন স্যার। আল্লাহ আপনাকে জান্নাতবাসী করুন। আমিন।’ বিজ্ঞাপন লিটন দাস লিখেছেন, ‘জাতীয় ক্রিকেট কোচ ও প্রখ্যাত ক্রিকেট লেখক জালাল আহমেদ চৌধুরীর সংবাদটা শুনে খারাপ লাগছে।

শান্তিতে ঘুমান।’ শোক জানিয়েছেন সাকিব আল হাসানও, ‘বাংলাদেশের অন্যতম ক্রিকেট লেখক ও স্বনামধন্য কোচ জালাল আহমেদ চৌধুরীর পরলোকগমনে আমরা গভীরভাবে মর্মাহত।’ জাতীয় দলের সাবেক ওপেনার শাহরিয়ার নাফিস লিখেছেন, ‘আমাদের প্রিয় কোচ জালাল আহমেদ চৌধুরী স্যার আর নেই। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। আল্লাহ তাঁর আত্মাকে ক্ষমা করুন। আমিন।’ জালাল আহমেদ চৌধুরীর মৃত্যুতে শোক জানিয়েছে বিসিবি। শোক জানিয়েছে ক্রিকেটারদের সংগঠন কোয়াব, সাংবাদিকদের সংগঠন বিএসজেএ ও বিএসপিএ। আজ বিকালে জানাজা শেষে আজিমপুর কবরস্থানে চিরনিদ্রায় শায়িত করা হবে দেশবরেণ্য এই ক্রীড়াব্যক্তিত্বকে।

Categories
Uncategorized

‘ক্রিকেট–শুদ্ধতার বড় দেয়াল ধসে পড়ল’

দুপুর থেকেই বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে অপেক্ষায় ছিলেন জাতীয় দলের সাবেক ক্রিকেটার গাজী আশরাফ হোসেন, সাবেক কোচ ওসমান খান, সাবেক ফুটবলার হাসানুজ্জামান বাবলু, ভলিবল ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আশিকুজ্জামান মিকু, হ্যান্ডবল ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান কোহিনুরসহ ক্রীড়াঙ্গনের অনেকে। অপেক্ষায় ছিলেন সংবাদমাধ্যম কর্মীরাও। মরদেহবাহী অ্যাম্বুলেন্সে প্রিয় বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে শেষবারের মতো এলেন ক্রিকেট লেখক ও কোচ জালাল আহমেদ চৌধুরী। তবে চিরচেনা হাসিমুখের বদলে নিথর দেহে শুয়ে রইলেন সাদা কাপড়ে মোড়ানো অবস্থায়। বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন আজ মঙ্গলবার সকালে রাজধানীর একটি হাসপাতালে মারা গেছেন ৭৪ বছর বয়সী এই সাবেক কোচ। দুপরে একদফা জানাজা হয়েছে বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে। সেখানে জানাজার পর জালাল আহমেদ চৌধুরীর স্মৃতিচারণা করলেন তাঁর একসময়ের সহকর্মী, সাবেক ক্রিকেটারসহ অনেকে। জালাল আহমেদের দ্বিতীয় দফা জানাজা হবে আজিমপুর ইরাকি মাঠে। এরপর রাতেই হবে আজিমপুর কবরস্থানে তাঁর দাফন। ১৯৭৯ সালে জালাল আহমেদ চৌধুরীর সঙ্গে ভারতের পাতিয়ালায় কোচিং কোর্স করতে গিয়েছিলেন কোচ ওসমান খান। প্রিয় মানুষটির চলে যাওয়ায় আজ কান্নাভেজা কণ্ঠে তিনি বলছিলেন, ‘জালাল ভাই বাংলাদেশের ক্রিকেটের জন্য যা কিছু করেছেন, তা নিয়ে কোনো প্রতিদান চাননি। উনি টাকাপয়সার লোভী ছিলেন না।

সব সময় চিন্তা করতেন ক্রিকেট নিয়ে। জালাল ভাই চলে গেলেন। আমি একা হয়ে গেলাম।’ বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে ক্রিকেট লেখক ও কোচ জালাল আহমেদ চৌধুরীর জানাজা অনুষ্ঠিত হয় বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে ক্রিকেট লেখক ও কোচ জালাল আহমেদ চৌধুরীর জানাজা অনুষ্ঠিত হয়ছবি: প্রথম আলো ক্রিকেটারদের যেভাবে অনুপ্রেরণা দিতেন জালাল আহমেদ চৌধুরী, সেটা কখনোই ভুলবেন না সাবেক ক্রিকেটার গাজী আশরাফ, ‘১৯৭৮ সালে পাতিয়ালায় যাওয়ার আগে আমাকে একটা খাম দিয়ে গিয়েছিলেন। আমি তখন মাঠে মোহামেডানের ফুটবল খেলা দেখতে এসেছি। এর আগে আমি ওয়ারীর বিপক্ষে সেঞ্চুরি করেছিলাম। সেই খামে ছিল একটা চিঠি। যেখানে লেখা, অভিনন্দন, আশা করি, আরও ভালো খেলবে। খামের মধ্যে ছিল ১০০ টাকা। ওই টাকা বড় কিছু না আমার জন্য। কিন্তু যে আবেগ আর ভালোবাসা ছিল, সেটা আমি একা নই, যুগে যুগে সর্বস্তরের সব খেলোয়াড় পেয়ে এসেছে তাঁর কাছ থেকে।’ বিজ্ঞাপন জালাল আহমেদ চৌধুরী ছিলেন পরিবারের সবার বড় ছেলে। তিন ভাই ও এক বোনকে স্নেহের বাঁধনে আগলে রাখতেন সব সময়। যুক্তরাষ্ট্রের হিউস্টন থেকে জালাল আহমেদ চৌধুরীর অসুস্থতার খবর পেয়ে আজ ঢাকা এসেছেন আবু ওবায়দা চৌধুরী। পরিবারের সবার ছোট ওবায়দা চৌধুরী কাঁদতে কাঁদতে স্মৃতিচারণা করলেন বড় ভাইয়ের, ‘উনাকে আদর করে আমরা ময়না বলে ডাকতাম। ভাইয়া বলতাম না। উনি কখনো শাসন করতেন না।

ভাবি বেঁচে নেই। সব সময় ফোন করে বলতেন, “কবে আসবি?” ফোনে বলতেন, আজ মিটিং, আজ পিকনিক। এসব গল্পই হতো। আমার ভাইকে যেভাবে মানুষ ভালোবাসে, এটা দেখে আমি মুগ্ধ।’ দেশের ক্রিকেটে বেশির ভাগের শ্রদ্ধার পাত্র ছিলেন জালাল আহমেদ চৌধুরী দেশের ক্রিকেটে বেশির ভাগের শ্রদ্ধার পাত্র ছিলেন জালাল আহমেদ চৌধুরীফাইল ছবি: প্রথম আলো ক্রিকেট কোচের বাইরে জালাল আহমেদ চৌধুরীর আরেকটা পরিচয় ক্রীড়া লেখক। বাংলাদেশ স্পোর্টস প্রেস অ্যাসোসিয়েশনের সাবেক সভাপতি ও কালের কণ্ঠের উপসম্পাদক মোস্তফা মামুন বললেন, ‘জালাল ভাইকে যদি সাংবাদিকতার জায়গা থেকে চিন্তা করি, তাহলে আমাদের ক্রিকেট লেখালেখির সঙ্গে ক্রিকেট প্রশাসনের সংযোগের সেতু ছিলেন। ক্রিকেটকে আমরা খেলা হিসেবে দেখি। জালাল ভাই খেলা হিসেবে দেখতেন না কখনো। উনি মনে করতেন, এটা একটি শিল্প। এটা জীবনবোধ। উনি যখন লিখতেন, অনেক অপ্রচলিত শব্দ ব্যবহার করতেন। যাঁরা জানেন, তাঁরা বুঝতেন ওই জায়গায় ওটাই সঠিক শব্দ।’ জালাল আহমেদ চৌধুরীর মৃত্যুতে বড় ক্ষতি হয়েছে বলে মনে করেন মামুন, ‘আমাদের আশি–নব্বইয়ের দশকে ক্রিকেটের গণভিত্তি ছিল না। টাকাপয়সা ছিল না। তখনো যে ক্রিকেটচর্চা টিকে ছিল, সেগুলো অল্প কিছু মানুষের জন্য। যাঁরা ক্রিকেটকে নিজের জীবনের অংশ করে নিয়েছিলেন, তিনি তাঁদেরই একজন। আসলে আমাদের ক্রিকেট–চিন্তা, ক্রিকেট–শুদ্ধতার বড় দেয়াল ধসে পড়ল।’

Categories
Uncategorized

‘আমি মারা না যাওয়া পর্যন্ত কেউ এই পদ চাইবে না’

২০১৭ সালে বিসিবি নির্বাচনে নির্বাচিত নাজমুল হাসানের পরিচালনা পর্ষদের মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা ছিল আগামী ৩১ অক্টোবর। কিন্তু আজই ১২তম বোর্ড সভার মাধ্যমে ভেঙে গেল সর্বশেষ নির্বাচিত কমিটি। যার মাধ্যমে বিসিবি নির্বাচনের কার্যক্রমও আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয়ে গেল। আজ মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে বিসিবি কার্যালয়ের সামনে সভাপতি হিসেবে নিজের শেষ সংবাদ সম্মেলন করেন নাজমুল হাসান। সেখানে তিনি জানালেন আগামী নির্বাচন নিয়ে তাঁর পরিকল্পনার কথা। কোনো প্যানেল ছাড়াই উন্মুক্ত অংশগ্রহণের মাধ্যমে নির্বাচন করার ঘোষণা দিয়েছেন তিনি। সে ক্ষেত্রে যে কেউ চাইলেই পরিচালক, এমনকি বিসিবি সভাপতি পদেও দাঁড়াতে পারবেন। বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন নাজমুল হাসান বলেছেন, ‘আমি যদি এখানে থাকি, আমার একটা জিনিস মনে হচ্ছে যে আমি মারা না যাওয়া পর্যন্ত কেউ এই পদটা নিতে চাইবে না। এটা একটা ভুল জিনিস, আমি এটা মনেপ্রাণে বিশ্বাস করি না। আমি চাই, আমার বোর্ডে যারাই আসুক, তারা চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করুক,

আমি সভাপতি হতে চাই। অন্তত বলুক, এখন তো কেউ বলেও না। এটা ভালো দিক না। কারও জন্য কিছু আটকে থাকে না। আমাদের একটা পাইপলাইন থাকা উচিত, নতুন যারা দায়িত্ব নেবে।’ বোর্ডে নতুন ভাবনা চাইছেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান বোর্ডে নতুন ভাবনা চাইছেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসানফাইল ছবি: প্রথম আলো ক্রিকেট বোর্ডের নির্বাচনে সুস্থ প্রতিযোগিতা সৃষ্টি করতেই নাকি নাজমুল হাসানের এই সিদ্ধান্ত, ‘প্রতিবার একটা প্যানেল থাকে। প্যানেলটা দিলে হয় কি, আর কেউ দাঁড়ায়ই না। অপ্রতিদ্বন্দ্বী হয়ে যাচ্ছে। এবার তো প্যানেলেই নেই। এবার তো কেউ বলতে পারবে না যে এ আমার প্রার্থী কিংবা ও আমার প্রার্থী। আমি আশা করব, এবার নির্বাচনটা হোক।’ বিজ্ঞাপন নতুন নেতৃত্ব, নতুন চিন্তাধারা ক্রিকেট বোর্ডে আসুক—এটাই নাজমুল হাসানের চাওয়া। ‘আবারও বলে নিচ্ছি, এবারের নির্বাচনটা একটু ভিন্ন। আমি আগে থেকেই বলে আসছি, আবারও বলছি, সাধারণ যে জিনিসটা হয়, আমি মনেপ্রাণে বিশ্বাস করি, নতুন ভাবনা, নতুন মানসিকতা যদি না আসে ক্রিকেট বোর্ডে, তাহলে সব একই ধারায় চলতে থাকে। এবার আমি মনেপ্রাণে চাইছি নতুন লোকের আসা উচিত’, বলেছেন নাজমুল হাসান।

পরিচালক হিসেবে বোর্ডে থাকার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন নাজমুল হাসান পরিচালক হিসেবে বোর্ডে থাকার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন নাজমুল হাসানফাইল ছবি: প্রথম আলো তবে নাজমুল হাসান পরিচালক হিসেবে বোর্ডে থাকার ইচ্ছে প্রকাশ করেছেন। নতুন নেতৃত্ব এলে তাদের সম্পূর্ণ সহায়তা করার আশ্বাসও দেন তিনি, ‘আমি চেষ্টা করব এবং চাইব যে নতুন কেউ আসুক। নতুন কেউ এলে খুশি হব। আমি পুরোপুরি সমর্থন দেব, কোনো অসুবিধা নেই। যে–ই আসুক, আমি তাদের পূর্ণ সমর্থন দেব। আমরা যদি হেরেও যাই, নতুন যারা আসবে, তাদের সমর্থন দেব। আমাকে যখন যা বলবে, তখন তাই করব। এটা কিন্তু ঠিক নয় যে একরকমভাবে চলছে চলবেই। আর কারও ইচ্ছে থাকবে না, থাকলে বলবেও না। এই জিনিসটা মনে হয় ঠিক নয়।’

Categories
Uncategorized

মেসি–রোনালদো কি এখন ‘সাধারণ’ ফুটবলার

আকাশে ওড়ার দিন ফুরিয়ে এলে মাটিতে নামতেই হয়। অমিত প্রতিভার বলেই এত দিন ধরাছোঁয়ার ঊর্ধ্বে ছিলেন লিওনেল মেসি ও ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। মৌসুমের পর মৌসুম ধরে ক্লাব তাঁদের ঘিরে পরিকল্পনা করেছে। মাঠে তাঁদের প্রাধান্য দিয়ে ছক কষেছেন কোচরা। মহাতারকা না হলে এসব মেলে! সবকিছুরই শেষ আছে, জীবনানন্দের ভাষায় ‘নক্ষত্রেরও একদিন মরে যেতে হয়’। ৩৪ ও ৩৬ বছর বয়সে এসে পুরোনো সেই দিনগুলো দুই মহাতারকার মুঠো ফসকে ক্রমশ বেরিয়ে যাচ্ছে। আগে পুরো সময় নেতৃত্ব দিতে হতো মাঠে, এখন দলের গোলের প্রয়োজনের সময়ও কোচরা তাঁদের তুলে নেন! বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন প্রায় দেড় যুগ ধরে বিশ্বসেরা এ দুই ফুটবলারকে এখন আর দশজন সাধারণ খেলোয়াড়ের মতোই দেখছেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড কোচ ওলে গুনার সুলশার এবং পিএসজি কোচ মরিসিও পচেত্তিনো। নইলে ম্যাচের গুরুত্বপূর্ণ সময়ে তাঁদের চিত্র এমন হবে কেন! যে চ্যাম্পিয়নস লিগ ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর টুর্নামেন্ট হিসেবে খ্যাত, সেখানে ইয়ং বয়েজের বিপক্ষে ম্যান ইউ ১–১ গোলে সমতায় থাকার সময়ে তাঁকে তুলে নেন সুলশার। ইউনাইটেডকে প্রথম গোলটা এনে দেওয়া রোনালদো মাঠ ছেড়েছেন কালো মুখে।

ডাগআউটে মুখ ভার করে বসে ছিলেন। মাঠে ছেড়ে উঠে আসার সময় মেসির প্রতিক্রিয়া মাঠে ছেড়ে উঠে আসার সময় মেসির প্রতিক্রিয়াছবি: এএফপি মেসির মুখের চিত্রও আলাদা ছিল না। রোববার ফরাসি লিগে লিঁও–র বিপক্ষে ম্যাচে ১–১ গোলে সমতায় থাকার সময়ে মেসিকে তুলে নেন পিএসজি কোচ পচেত্তিনো। যোগ করা সময়ে মাউরো ইকার্দির গোলে পিএসজি শেষ পর্যন্ত জিতলেও পচেত্তিনোর বার্তাটা পরিষ্কার ছিল—গোলের জন্য তিনি মেসির ওপর ভরসা রাখতে পারেননি। পর্তুগিজ তারকার মতো আর্জেন্টাইন তারকাও এভাবে বদলি হিসেবে মাঠ ছাড়তে ঠিক অভ্যস্ত নন। রোনালদো ওয়েস্ট হামের বিপক্ষে পরের ম্যাচে পুরো সময় খেলে গোল করে নিজের সামর্থ্যকে পুনরায় প্রমাণ করলেও মেসি এখনো সে সুযোগ পাননি। ফরাসি সংবাদমাধ্যম লে’কিপ জানিয়েছে, সেই ম্যাচে হাঁটুতে ব্যথা অনুভব করছিলেন মেসি, পচেত্তিনো তাই সেদিন তাঁকে তুলে নিয়েছেন। বিজ্ঞাপন কারণ যা–ই হোক, মেসি এভাবে মাঠ ছাড়তে অনভ্যস্ত। উঠে আসার পর তাঁর চোখেমুখেই সেই অনুভূতি ফুটে উঠেছে। ফরাসি সংবাদমাধ্যম তাঁর সমালোচনা করেছে। পরিসংখ্যান বলছে, বদলি হয়ে গোটা ক্যারিয়ারে খুব কম সময়েই মাঠ ছেড়েছেন মেসি।

খেলাধুলার পরিসংখ্যানভিত্তিক প্রতিষ্ঠান ‘অপটা’র হিসেবে ২০১০ সাল থেকে ৩৭১ লিগ ম্যাচের মধ্যে মাত্র ১৮ বার বদলি হয়ে মাঠ ছাড়েন মেসি। এর মধ্যে ৯ বারই উঠে আসতে হয়েছে চোটের কারণে। হিসাবটা আরেকটু বড় করা যায়। ক্যারিয়ার শুরুর পর এ পর্যন্ত ৫৫৪টি লিগ ম্যাচে মাত্র ৫৪ বার কোচ তাঁকে বদলি হিসেবে তুলে নিয়েছেন। বার্সা কোচ রোনাল্ড কোমান তাঁকে গত জানুয়ারিতে বদলি হিসেবে তুলে এনেছিলেন, গ্রানাডার সঙ্গে সে ম্যাচে মেসি উঠে যাওয়ার সময় ৪–০ গোলে এগিয়ে ছিল বার্সা। কিন্তু পিএসজি কোচ গত রোববার ম্যাচের ১৫ মিনিট আগে যখন মেসিকে তুলে নিয়েছেন, তখনো তাঁর দল হন্যে হয়ে গোল খুঁজছে। চ্যাম্পিয়নস লিগ ম্যাচে বদলি হয়ে মাঠ ছাড়ছেন রোনালদো চ্যাম্পিয়নস লিগ ম্যাচে বদলি হয়ে মাঠ ছাড়ছেন রোনালদোছবি: এএফপি এই যে চোখের সামনে তাঁদের এত দিনের চিরচেনা দুনিয়াটা পাল্টে যাচ্ছে, তা মেনে নেওয়া সহজ নয় বলেই লিঁওর বিপক্ষে মাঠ ছাড়ার সময় কোচের সামনে মেসির প্রতিক্রিয়াটা ইতিবাচক ছিল না। ফরাসি সংবাদমাধ্যম ‘লা পারিসিয়েন’ এ নিয়ে লিখেছে, ‘প্যারিসে তাঁর (মেসির) সময়টা প্রত্যাশার চেয়েও জটিল হবে। ও ফুরিয়ে আসছে। মাথাটা ক্রমশ নিচু হচ্ছে ওর। ম্যাচে আর আগের মতো প্রভাব ফেলতে পারছে না।’ কিন্তু দুজনেই তো অসাধারণ ফুটবলার। সাধারণ সময়কে কীভাবে অসাধারণ বানাতে হয়, সেটাও তাঁদের জানা। তাই এখন দেখার বিষয়, সময়টা তাঁদের জন্য সত্যিই সাধারণ ফুটবলারদের মতো হয়ে উঠেছে কি না!

Categories
Uncategorized

‘ওদের আর ছেড়ে দেওয়া যাবে না’, বাবরকে শোয়েব

নিউজিল্যান্ড দল নিরাপত্তা–হুমকিকে কারণ দেখিয়ে পাকিস্তান সফর থেকে চলে গেছে। কিন্তু পাকিস্তানের দাবি, তাদের দেশে ক্রিকেট খেলায় নিরাপত্তার কোনো শঙ্কাই নেই। কী ধরনের নিরাপত্তা–হুমকি, কোন পর্যায়ের হুমকি—সেসব না জানিয়ে চলে যাওয়াতেই নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডের (এনজেডসি) ওপর খেপে আছে পাকিস্তান। কিন্তু নিউজিল্যান্ড চলে যাওয়া যদি হয় ক্ষত, সেটিতে নুনের ছিটা হয়ে এসেছে গতকাল ইংল্যান্ডের পাকিস্তান সফরে না আসার ঘোষণা। ক্ষতে নুন পড়ায় জ্বালাপোড়া বেড়েছে, নিউজিল্যান্ডের ওপর তাই ক্ষোভ আরও বেড়েছে পাকিস্তানের। নিউজিল্যান্ড ফিরে যাওয়াতে অন্য দলগুলো পাকিস্তানে যেতে না চাওয়ার একটা কারণ খুঁজে পাবে, পাকিস্তানের যুক্তি এমনই। বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন নিউজিল্যান্ডের ওপর পাকিস্তানের মানুষ যে খ্যাপা, সেটির প্রমাণ আরেকবার পাওয়া গেল পাকিস্তানের সাবেক ফাস্ট বোলার শোয়েব আখতারের কথায়। আগামী মাসে অনুষ্ঠেয় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ আছে পাকিস্তানের। সে ম্যাচে নিউজিল্যান্ডকে ছেড়ে না দিতে পাকিস্তান অধিনায়ক বাবর আজমকে আহ্বান জানিয়েছেন শোয়েব। পাকিস্তানের হতাশ হওয়ারই কথা! ২০০৯ সালে লাহোরে শ্রীলঙ্কা দলের বাসে সন্ত্রাসী হামলার কারণে মাঝে কতগুলো বছর দেশটাতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট হতে পারেনি। এরপর বছর তিনেক ধরে আস্তে আস্তে ক্রিকেট যা-ও ফিরতে শুরু করেছিল, এর মধ্যেই এল এ ধাক্কা।

১৮ বছর পর পাকিস্তান সফরে গিয়েছিল নিউজিল্যান্ড। কিন্তু সফরের প্রথম ম্যাচ শুরুর কয়েক ঘণ্টা আগে এনজেডসির কাছে খবর এল, তাদের দল স্টেডিয়ামে যাওয়ার পথে সন্ত্রাসী হামলার শিকার হতে পারে। শুক্রবার তাই প্রথম ওয়ানডে শুরুর আগে হোটেলই ছাড়েনি নিউজিল্যান্ড দল। কিছুক্ষণ পর ঘোষণা আসে, সফর বাতিল করে ফিরে যাবে তারা। বিজ্ঞাপন কী ধরনের হামলার আশঙ্কা ছিল, কোন পর্যায়ের শঙ্কা—নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড এর কিছুই খোলাসা করেনি। তবে পাকিস্তানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ রাশিদ আহমাদ পরে বলেন, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ও পাকিস্তান ক্রিকেটের কিংবদন্তি অধিনায়ক ইমরান খানের সঙ্গে ফোনালাপে নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আরডার্ন জানিয়েছেন, স্টেডিয়ামের বাইরে নিউজিল্যান্ড দলের ওপর সন্ত্রাসী হামলা হবে, এমন সুনির্দিষ্ট তথ্য তাঁদের কাছে ছিল। তা নিউজিল্যান্ডের সফর বাতিল করে ফিরে যাওয়া মানে তো শুধু একটা সিরিজই বাতিল হওয়া নয়, পাকিস্তানে অন্য দলগুলোর নিরাপত্তা নিয়েও নতুন করে শঙ্কা তৈরি হওয়া। শঙ্কাটা সত্যি করে গতকাল ইংল্যান্ড দলও জানাল, আগামী মাসে তাদের ছেলে ও মেয়েদের দলের পাকিস্তান সফরে যাওয়ার কথা থাকলেও সেটি তারা বাতিল করছে। এরপরই নতুন করে নিউজিল্যান্ডের ওপর ক্ষোভটা ঝেড়েছেন শোয়েব আখতার। তাঁরই শহর রাওয়ালপিন্ডি থেকে নিউজিল্যান্ড দল এভাবে ফিরে যাওয়ায় শোয়েবের ক্ষতটা হয়তো একটু বেশিই! টুইটারে একটি ভিডিও পোস্ট করে গতকাল ক্যাপশনে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেটের টুইটার অ্যাকাউন্টকে ট্যাগ করে শোয়েব লিখেছেন, ‘তাহলে ইংল্যান্ডও (পাকিস্তান সফরে আসতে) আপত্তি জানিয়ে দিল!

ঠিক আছে, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেই তোমাদের দেখে নেব। বিশেষ করে নিউজিল্যান্ড, তোমাদের!’ এর নিচে বর্তমান পাকিস্তান দলের অধিনায়ক বাবর আজমকে ট্যাগ করে সাবেক পাকিস্তানি ফাস্ট বোলার লিখেছেন, ‘পাঞ্জা লড়ার সময় চলে এসেছে। ওদের আর ছেড়ে দেওয়া যাবে না, বাবর!’ টুইটে ইউটিউবের একটি ভিডিওর লিংকও জুড়ে দিয়েছেন শোয়েব। ভিডিওটা তাঁর নিজের ইউটিউব অ্যাকাউন্টের। সে ভিডিওতে শোয়েব বলেছেন, ‘(বিশ্বকাপে) প্রথমে ভারতের সঙ্গে আমাদের ম্যাচ আছে। আমাদের এর পরের বড় ম্যাচটা ২৬ অক্টোবর, নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে। ওই ম্যাচে আমাদের সব রাগ ঝাড়তে হবে।’ রাগ ঝাড়তে হলে নিউজিল্যান্ডকে বিধ্বস্ত করার মতো দলও তো লাগবে, আর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পাকিস্তান দল নিয়ে নিজের হতাশা আগেই জানিয়ে রেখেছেন শোয়েব। এবারও তাই সুযোগ বুঝে পিসিবিকে একটা পরামর্শ দিয়ে রেখেছেন শোয়েব, ‘প্রথমত পিসিবির উচিত, আমাদের দল নির্বাচনের ক্ষেত্রে ঝামেলাগুলো মিটিয়ে ফেলা। যে তিন-চারজন মূল একাদশে ঢুকলে পাকিস্তান দলকে অন্য যেকোনো সময়ের চেয়ে শক্তিশালী মনে হবে, তাদের দলে নেওয়া।’ পাকিস্তান এর চেয়েও খারাপ সময় কাটিয়েছে জানিয়ে কোনো চিন্তা না করেই খেলার পরামর্শ দিয়েছেন শোয়েব, ‘বিশ্বকাপই আমাদের সব হতাশা উগরে দেওয়ার সময়। পাকিস্তানের এটাই করা উচিত। সে জন্য মনোযোগ পুরোপুরি ধরে রাখতে হবে। পাকিস্তানের কোনো কিছু নিয়ে চিন্তা থাকা উচিত নয়। এর চেয়েও খারাপ সময় আমরা পার করে এসেছি।’

Categories
Uncategorized

৩৬ বছর বয়সেও রোনালদোর গতি ঘণ্টায় ৩৪ কিলোমিটার

বয়সটা যে নিছকই সংখ্যা, তা প্রতিটি ম্যাচেই দেখিয়ে যাচ্ছেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। বিভিন্ন দেশে বিভিন্ন ক্লাবের হয়ে ক্যারিয়ারজুড়ে যা করে এসেছেন, ৩৬ বছর বয়সে পুরোনো ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে ফিরেও তা-ই করে যাচ্ছেন পর্তুগিজ ফরোয়ার্ড। তা হলো, গোলের পর গোল। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের জার্সিতে ফিরে ৩ ম্যাচ খেলে এরই মধ্যে ৪ গোল করেছেন পর্তুগিজ তারকা। বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন গত রোববার প্রিমিয়ার লিগের সর্বশেষ ম্যাচে ওয়েস্ট হামের বিপক্ষে ২-১ গোলের জয়ে প্রথম গোল করে ইউনাইটেডকে সমতায় ফেরান রোনালদো। জয়সূচক গোলটি করেছিলেন জেসি লিনগার্ড। সে ম্যাচে গোল ছাড়া ব্যক্তিগত আরও একটি কীর্তি গড়েছেন রোনালদো।

এই ৩৬ বছর বয়সে এসেও ঘণ্টায় ৩২.৫১ কিলোমিটার গতিতে দৌড়েছেন তিনি। তথ্যটি জানিয়েছে তাঁর ক্লাবের পরিসংখ্যান বিভাগ। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে ফিরে গোলের দেখা পাচ্ছেন রোনালদো ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে ফিরে গোলের দেখা পাচ্ছেন রোনালদোছবি: এএফপি সে ম্যাচে তাঁর চেয়ে বেশি গতিতে দৌড়াতে পারেননি ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের অন্য কোনো খেলোয়াড়। কাছাকাছি ঘণ্টায় ৩২.৪১ কিলোমিটার গতিতে দৌড়ান রাইটব্যাক ওয়ান বিসাকা। রাইট উইঙ্গার জেরার্ড বাওনের সর্বোচ্চ গতি ছিল ঘণ্টায় ৩১.২৯ কিলোমিটার। বিজ্ঞাপন তবে ওয়েস্ট হামের চেয়ে নিউক্যাসল ইউনাইটেডের বিপক্ষে বেশি গতির ঝড় তুলেছিলেন রোনালদো। ক্লাবের ওয়েবসাইটের তথ্য অনুযায়ী, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের জার্সিতে ফেরার সে ম্যাচে ঘণ্টায় ৩৪.২০ কিলোমিটার গতিতে দৌড়ান পর্তুগিজ

Categories
Uncategorized

৫ বছর পর নাসির, আছেন ১৮ বছরের মারাজও

২০১৬ সালে এশিয়ান কাপের প্রাক্‌–বাছাইয়ে তাজিকিস্তানের বিপক্ষে সর্বশেষ ম্যাচ খেলেছিলেন দেশের অন্যতম অভিজ্ঞ ডিফেন্ডার নাসিরুল ইসলাম। তাঁর সমসাময়িক প্রায় সব খেলোয়াড় জাতীয় দল থেকে ছিটকে গেছেন।তবে প্রায় পাঁচ বছর পর নতুন করে ফিরে এলেন নাসিরুল। মালদ্বীপে ১ অক্টোবর শুরু হতে যাওয়া সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ সামনে রেখে আজ রাতে ঢাকার একটি হোটেলে তোলা হয়েছে বাংলাদেশের প্রাথমিক তালিকার ২০ ফুটবলারকে।

গত রাতে টিম হোটেলে উঠেছেন সদ্য বাদ পড়া গোলরক্ষক আশরাফুল রানাও। তবে সব ছাপিয়ে বড় চমক হিসেবে প্রথমবারের মতো জাতীয় দলে প্রাথমিক তালিকায় আছেন সাইফ স্পোর্টিংয়ের তরুণ ফরোয়ার্ড মারাজ হোসেন। ১৮ বছরের এই স্ট্রাইকার প্রিমিয়ার লিগে গোল করেছেন ৩টি। তবে আজ হোটেলে ওঠা সব খেলোয়াড়ই জাতীয় দলের সাফ ক্যাম্পে থাকবেন, তা চূড়ান্ত নয়। কতজন নিয়ে ক্যাম্প শুরু হবে, সেটিও বলতে পারছে না বাফুফে। অন্তর্বর্তীকালীন কোচ অস্কার ব্রুজোন আগামীকাল দুপুরে সাড়ে ১২টায় বাফুফে ভবনে সংবাদ সম্মেলন করে দল নিয়ে তাঁর পরিকল্পনা জানাবেন। জাতীয় দলে যখন খেলতেন নাসির জাতীয় দলে যখন খেলতেন নাসিরছবি: সংগৃহীত ৯ দিন পর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ শুরু করবে বাংলাদেশ। অথচ এখনো দলই ঘোষণা করা যায়নি! বাফুফের ভাষ্যমতে, বসুন্ধরা কিংস বনাম আবাহনী লিমিটেডের প্রিমিয়ার লিগের শেষ ম্যাচটি বাকি থাকায় মাঠে নামা যায়নি এত দিনেও।

ম্যাচটি গতকাল শেষ হয়েছে। আজ শুরু হওয়ার কথা ছিল ক্যাম্প ও অনুশীলন। কিন্তু নানা জটিলতায় এখনো অনুশীলন শুরু হয়নি। তালগোল পাকিয়ে বাফুফে বিশৃঙ্খল এক অবস্থায় পড়েছে। বিজ্ঞাপন ২৮ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশ ঢাকা ছাড়ার আগে অনুশীলনের সময় মিলছে মাত্র ছয় দিন। এই অল্প সময়ের প্রস্তুতিতে বসুন্ধরা ও আবাহনীর খেলোয়াড়েরা কোনোরকমে তৈরি হতে পারলেও বাকিদের নিয়ে প্রশ্ন থেকেই যায়, যেহেতু এই দুই দলের বাইরের খেলোয়াড়েরা লিগ শেষে করেছেন আগেই। প্রথমবারের মতো জাতীয় দলের প্রাথমিক তালিকায় মারাজ ডাক পেয়েছেন প্রথমবারের মতো জাতীয় দলের প্রাথমিক তালিকায় মারাজ ডাক পেয়েছেনছবি: সংগৃহীত তাঁদের ফিটনেস ধরে রাখার জন্য জাতীয় দল কমিটির পক্ষ থেকে আগেই অনুশীলন শুরু করা যেত বলে মনে করেন অনেকেই। কোচ নিয়ে জটিলতাও শেষ হচ্ছে না। গত শুক্রবার জাতীয় দল কমিটি দুই মাসের জন্য অন্তর্বর্তীকালীন কোচ হিসেবে অস্কার ব্রুজোনের নাম ঘোষণা করলেও আজ বদলে গেছে সুর। আপাতত সাফের জন্য অস্কারকে বিবেচনা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন বাফুফের জাতীয় দল কমিটির প্রধান কাজী নাবিল আহমেদ।

Categories
Uncategorized

৬ অক্টোবর বিসিবি নির্বাচন

আগামী ৬ অক্টোবর বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) নির্বাচন। আজ বিসিবি এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বিসিবির নির্বাচনী তফসিল ঘোষণা করে। তফসিল অনুযায়ী খসড়া ভোটার তালিকা প্রকাশ আগামীকাল ২২ সেপ্টেম্বর, পরদিন খসড়া ভোটার তালিকার ওপর আপত্তি গ্রহণ ও শুনানি। ২৩ সেপ্টেম্বর চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করা হবে। মনোনয়নপত্র বিতরণ হবে ২৪ ও ২৫ সেপ্টেম্বর। মনোনয়নপত্র দাখিল ২৭ সেপ্টেম্বর। মনোনয়নপত্র বাছাই ও প্রার্থী তালিকা প্রকাশ পরদিন। যাঁদের মনোনয়নপত্র বাতিল হবে, তাঁদের আপিল গ্রহণ ও শুনানি ২৯ সেপ্টেম্বর। ৩০ সেপ্টেম্বর মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার ও প্রার্থীদের চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশের ছয় দিন পরই নির্বাচন।

এর এক দিন পর ৭ অক্টোবর ঘোষণা করা হবে চূড়ান্ত ফলাফল। বিজ্ঞাপন বিজ্ঞাপন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান। বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান। ফাইল ছবি: প্রথম আলো নির্বাচন সামনে রেখে পাঁচ সদস্যবিশিষ্ট নির্বাচন কমিশন আজ সন্ধ্যায় বৈঠকে বসে। দীর্ঘ বৈঠক শেষে নির্বাচনের তফসিল সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে ঘোষণা করা হয়। তার আগে আজ দুপুরে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসানের বর্তমান পরিচালনা পর্ষদের শেষ সভা হয়ে গেছে। আর এই সভার পর দুই মেয়াদে বিসিবি সভাপতির দায়িত্ব পালন করা নাজমুল হাসান উন্মুক্ত নির্বাচনের ঘোষণা দিয়ে বলছেন,

বিসিবিতে তিনি এবার নতুন নেতৃত্ব চান। বিজ্ঞাপন বিসিবির গঠনতন্ত্র অনুযায়ী তিন শ্রেণি থেকে কাউন্সিলর হওয়ার কথা মোট ১৭৪ জনের, বোর্ড পরিচালক হবেন ২৫ জন। এর মধ্যে জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ মনোনীত পরিচালক থাকবেন ২ জন। বিসিবির গঠনতন্ত্র অনুযায়ী তিন শ্রেণি থেকে কাউন্সিলর হওয়ার কথা মোট ১৭৪ জনের, বোর্ড পরিচালক হবেন ২৫ জন। এর মধ্যে জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ মনোনীত পরিচালক থাকবেন ২ জন। তবে আজ কাউন্সিলরদের যে খসড়া তালিকা পাওয়া গেল, তাতে বিসিবি নির্বাচনে ভোটার ১৭১ জন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, বরিশাল শিক্ষা বোর্ড ও অগ্রণী ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাব থেকে কোনো কাউন্সিলরের নাম আসেনি।